Last Update

Saturday, August 30, 2014

৩০০ সৈন্য হত্যা করেছে আইএস

ইরাকের পর এবার সিরিয়ার সৈন্যদের হত্যা করছে ইসলামি স্টেট (আইএস)। উত্তরাঞ্চলীয় প্রদেশ আল-রাক্কা থেকে আটক ৩০০ সরকারি সেনাকে হত্যা করেছে বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে। ইন্টারনেটে প্রচারিত এক ভিডিওতে এসব সেনাকে হত্যার ছবি প্রকাশ করা হয়েছে। তবে নিরপেক্ষ কোনো সূত্র থেকে এ দাবির সত্যতা যাচাই করা সম্ভব হয়নি। যুক্তরাজ্যভিত্তিক সিরিয়ান অবজারভেটরি ফর হিউম্যান রাইটস বৃহস্পতিবার জানিয়েছে, সম্প্রতি ইসলামি স্টেটের জঙ্গিরা আল-তাবাকা বিমানঘাঁটিটি দখলে নেয়। ওই সময় পলায়নরত সিরীয় সেনাদের আটক করে তারা।
একটি ভিডিওচিত্রে দেখা যায়, জঙ্গিদের অস্ত্রের মুখে ১০ সিরীয় সেনা তাদের ইউনিফর্ম ছাড়া শুধু অন্তর্বাস পরিহিত অবস্থায় অজ্ঞাত স্থানের দিকে হেঁটে যাচ্ছে যেখানে তাদের হত্যা করা হয়। সিরিয়ান অবজারভেটরি হত্যার শিকার সেনার সংখ্যা ১৬০ জনের বেশি বললেও অন্য সূত্রগুলো জানিয়েছে, নিহত সেনার সংখ্যা ৩০০। এর আগে ইরাকে শত শত সেনা সদস্যকে আটকের পর হত্যা করে আইএস জঙ্গিরা। ২৪ অগাস্ট আইএস জঙ্গিদের সঙ্গে প্রবল লড়াইয়ের মুখে আল-তাবাকা বিমানঘাঁটির নিয়ন্ত্রণ হারায় সিরীয় সেনারা। একপর্যায়ে লড়াইয়ে পিছু হটে সিরীয় বাহিনী। আল-রাক্কায় এই বিমানঘাঁটিটিই ছিল ওই অঞ্চলে সিরীয় সেনাবাহিনীর সর্বশেষ শক্ত ঘাঁটি। তবে প্রায় বছরখানের আগে আইএস যোদ্ধাদের কাছে আল-রাক্কার নিয়ন্ত্রণ হারিয়েছিল সিরীয় বাহিনী। ইসলামি স্টেট (আইএস) ইতিপূর্বে দি ইসলামিক স্টেট অ্যান্ড দ্য লেভান্ত (আইএসআইএল) নামে পরিচিত ছিল। সম্প্রতি এই উগ্রপন্থী গোষ্ঠীটি দাবি করেছে তারা সিরিয়া এবং ইরাকের বিশাল অংশ নিয়ে ‘ইসলামি খেলাফত’ প্রতিষ্ঠা করেছে, যা ওই অঞ্চলের রাজনৈতিক মানচিত্রের জন্য হুমকি হয়ে উঠেছে। এই গোষ্ঠীটির ৭০ হাজার যোদ্ধা রয়েছে বলে ধারণা করা হয়। এসব যোদ্ধা আবু বাকার আল-বাগদাদির নেতৃত্বে ‘ইসলামি খেলাফত’ প্রতিষ্ঠার লক্ষ্যে নির্বিচারে হত্যাসহ অন্যান্য অপরাধ ঘটিয়ে যাচ্ছে।

Post a Comment

 
Back To Top