Last Update

Tuesday, September 2, 2014

অঘটনের অরণ্যে অদৃশ্য শারাপোভা

একে একে অনেক তারাই খসে পড়েছে। এবার প্রথম ধ্র“বতারার পতন দেখল ইউএস ওপেন। অঘটনের চোরাবালি এড়াতে পারলেন না মারিয়া শারাপোভাও। ফ্লাশিংমিডোর জৌলুস কমিয়ে চতুর্থ রাউন্ড থেকেই বিদায় নিলেন রুশ গ্ল্যামার কুইন। হেরে গেলেন ড্যানিশ রূপসী ক্যারোলিন ওজনিয়াকির কাছে। মেয়েদের আরেক সাবেক নাম্বার ওয়ান জেলেনা জানকোভিচের বিদায়ঘণ্টা বাজিয়ে দিয়েছেন ১৭ বছর বয়সী সুইস সেনসেশন বেলিন্দা বেনচিচ। এতদিন শুধু মেয়েদের এককেই ছিল অঘটনের ঘনঘটা। রোববার অঘটনের আঁচ লাগল পুরুষ এককেও। শীর্ষ দশের প্রথম নক্ষত্র হিসেবে ঝরে পড়লেন চতুর্থ বাছাই ডেভিড ফেরার। তৃতীয় রাউন্ডে তাকে ৬-৩, ৩-৬, ৬-১, ৬-৩ গেমে হারিয়েছেন ফ্রান্সের গিলেস সিমন। এছাড়া বিদায় নিয়েছেন দ্বাদশ বাছাই রিচার্ড গাসকুয়েট।
কোনো গ্র্যান্ডস্লাম না জিতেই একসময় র‌্যাংকিংয়ের চূড়ায় পা রেখেছিলেন ওজনিয়াকি। পতন হতেও সময় লাগেনি। তবে গলফ তারকা রবি ম্যাকলরয়ের সঙ্গে সম্পর্ক চুকে যাওয়ার পর ওজনিয়াকির ক্যারিয়ারে আবারও জোয়ারের টান লেগেছে। রোববার বদলে যাওয়া সেই ওজনিয়াকির সঙ্গে পেরে উঠলেন না পঞ্চম বাছাই শারাপোভা। ফরাসি ওপেনজয়ী শারাপোভাকে ৬-৪, ২-৬, ৬-২ গেমে হারিয়ে প্রায় দুই বছর পর কোনো গ্র্যান্ডস্লাম টুর্নামেন্টের কোয়ার্টার ফাইনালে পা রাখলেন দশম বাছাই ওজনিয়াকি। নবম বাছাই জানকোভিচকে ৭-৬, (৮/৬), ৬-৩ গেমে হারিয়ে ১৯৯৭ সালের পর সবচেয়ে কম বয়সী খেলোয়াড় হিসেবে ইউএস ওপেনের কোয়ার্টার ফাইনালে উঠেছেন বেনচিচ। ১৯৯৭ সালে মাত্র ১৬ বছর বয়সে ইউএস ওপেন জিতেছিলেন বেনচিচের স্বদেশী গ্রেট মার্টিনা হিঙ্গিস। মজার ব্যাপার হল, বেনচিচের কোচ এখন হিঙ্গিসের মা মেলানি মলিতর! এদিকে চতুর্দশ বাছাই লুসি সাফারোভাকে হারিয়ে প্রথমবারের মতো কোনো গ্র্যান্ডস্লামের শেষ আটের টিকিট কেটেছেন চীনা কন্যা পেং শুয়াং। ইতালির সারা ইরানিও পা রেখেছেন শেষ আটে। পুরুষ এককে ফেরারের বিদায়ের দিনে চতুর্থ রাউন্ড নিশ্চিত করেছেন রজার ফেদেরার, টমাস বার্ডিচ, গ্রিগর দিমিত্রভ ও সিলিচ। এএফপি।

Post a Comment

 
Back To Top