Last Update

Wednesday, September 23, 2015

২৫০ কোটি ডলারে মার্কিন হেলিকপ্টার কিনবে ভারত

ভারতের মন্ত্রিসভা গতকাল মঙ্গলবার ২৫০ কোটি ডলার ব্যয়ে যুক্তরাষ্ট্রের বোয়িং কোম্পানির অ্যাপাচি ও শিনুক হেলিকপ্টার কেনার প্রস্তাব অনুমোদন করেছে। এতে করে যুক্তরাষ্ট্রের সঙ্গে দেশটির প্রতিরক্ষা সম্পর্ক জোরদার হবে বলে মনে করা হচ্ছে। খবর রয়টার্সের। ভারত সরকারের এ উদ্যোগের ফলে দেশটির অন্যতম শীর্ষ অস্ত্র-সরঞ্জাম সরবরাহকারী হিসেবে ইসরায়েলের পাশাপাশি যুক্তরাষ্ট্রের অবস্থান আরও পোক্ত হবে। অন্যদিকে, এর ফলে ভারতের স্নায়ুযুদ্ধকালীন মিত্র রাশিয়ার দীর্ঘদিনের শক্ত অবস্থানটি পড়ে যাচ্ছে। চুক্তির আওতায় ভারত যুদ্ধে ব্যবহৃত ২২টি অ্যাপাচি ও ১৫টি শিনুক হেলিকপ্টার পাবে। এতে করে ভারতের সামারিক বাহিনী তাদের পুরোনো হয়ে যাওয়া সোভিয়েত আমলের হেলিকপ্টার বহর নবায়ন করতে পারবে। প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির আসন্ন যুক্তরাষ্ট্র সফরের প্রাক্কালে তার সরকার এ সামরিক সরঞ্জাম ক্রয়ের অনুমোদন দিল।
ইসরায়েলের কাছ থেকে ড্রোন: এদিকে টাইমস অব ইন্ডিয়া ভারতের প্রতিরক্ষা দপ্তরের সূত্র উদ্ধৃত করে জানিয়েছে, দেশটি শিগগিরই ইসরায়েলের কাছ থেকে অস্ত্রসজ্জিত চালকবিহীন বিমান (ড্রোন) কিনতে চায়। ড্রোন তৈরি ও ব্যবহারে প্রতিদ্বন্দ্বী চীন ও পাকিস্তানের তৎপরতার প্রেক্ষাপটে এ উদ্যোগ নিচ্ছে ভারত। ভারতের প্রতিরক্ষা দপ্তর মনে করছে, ইসরায়েলের কাছ থেকে অস্ত্রবাহী ড্রোন পেলে শত্রু দেশের ওপর নিজেদের ক্ষতির ঝুঁকি ছাড়াই হামলা করা সম্ভব হবে। ভারত তিন বছর আগে ইসরায়েলের কাছে থেকে হেরন ড্রোন কেনার পরিকল্পনা করেছিল। গত জানুয়ারি মাসে ভারতের সামরিক বাহিনীর পক্ষ থেকে ওই পরিকল্পনা দ্রুত বাস্তবায়নের তাগিদ দেওয়া হয়। সম্প্রতি প্রতিবেশী পাকিস্তান জঙ্গিদের বিরুদ্ধে হামলা চালাতে দেশে তৈরি ড্রোন ব্যবহার করেছে বলে জানা যায়। এর পরপরই ড্রোন পেতে ভারতে নতুন করে তাগিদ সৃষ্টি হয়েছে। সম্প্রতি খবর প্রকাশিত হয় যে ভারতের বিমানবাহিনী ড্রোন বহরের জন্য একটি পৃথক ক্যাডারই গঠন করবে।

Post a Comment

 
Back To Top