Last Update

Monday, October 26, 2015

এক আবাহনীর বিদায় আরেক আবাহনী শেষ চারে

আগের দিন ঢাকা আবাহনীকে টুর্নামেন্ট থেকে ছিটকে দেন কলকাতা ইস্টবেঙ্গলের গোলকিপার দিবেন্দ্যু সরকার। যার নামে এই টুর্নামেন্ট, সেই শেখ কামাল আবাহনীর প্রতিষ্ঠাতা। তার ক্লাব দর্শক হয়ে গেল। সেই তাদেরই গ্রুপপর্ব থেকে বিদায় করে দিয়ে সাত পয়েন্ট নিয়ে গ্রুপ চ্যাম্পিয়ন লাল-হলুদ শিবির। ম্যাচটি গোলশূন্য ড্র হয়। বুধবার সেমিফাইনালে ইস্টবেঙ্গল খেলবে ঢাকা মোহামেডানের বিপক্ষে। ইস্টবেঙ্গলের দরকার ছিল এক পয়েন্ট। কিন্তু ঢাকা আবাহনীকে জিততে হতো ২-০ গোলে। দ্বিতীয়ার্ধে গোলের জন্য মরিয়া ঢাকা আবাহনী চেপে ধরে প্রতিপক্ষকে।
এসময় রক্ষণ সামলাতে ব্যস্ত থাকতে হয় কলকাতার ক্লাবকে। দিবেন্দ্যু একাই রুখে দাঁড়ান সব ঝড়ঝাপটা। নিশ্চিত পাঁচটি গোল বাঁচিয়ে তিনিই ম্যাচসেরা। ঢাকা আবাহনীর ব্যর্থতার দিনে আয়োজক চট্টগ্রাম আবাহনী সেমিফাইনাল নিশ্চিত করে। শনিবার দিনের প্রথম ম্যাচে পাকিস্তান লীগ চ্যাম্পিয়ন করাচি ইলেকট্রিককে ৪-২ গোলে হারিয়ে ছয় পয়েন্ট নিয়ে গ্র“প রানার্সআপ হয় চট্টগ্রাম আবাহনী। আয়োজকদের বড় জয়ের স্থপতি জাহিদ হোসেন। তার হ্যাটট্রিকের হাত ধরে শেষ চারে পৌঁছে যায় চট্টগ্রাম আবাহনী। অপর গোলটি কিংসলে এলিটার। সেটিও জাহিদের পাসে। এমন চমকপ্রদ নৈপুণ্য সত্ত্বেও জাহিদকে ম্যাচসেরার পুরস্কার না দেয়াটাই বিস্ময়ের। সেটি পেয়েছেন কিংসলে।

Post a Comment

 
Back To Top