Last Update

Monday, October 26, 2015

শেয়ারবাজারে লেনদেন আরও কমেছে

শেয়ারবাজারে লেনদেন আরও কমেছে। রোববার দেশের দুই শেয়ারবাজার ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জ (ডিএসই) এবং চট্টগ্রাম স্টক এক্সচেঞ্জ (সিএসই) মিলে ৩৫৪ কোটি টাকা লেনদেন হয়েছে। আগের দিনের চেয়ে যা ৩১ কোটি টাকা কম। এর মধ্যে ডিএসইতে লেনদেন কমেছে ৩০ কোটি টাকা এবং সিএসইতে ১ কোটি টাকা। এর আগে গত সপ্তাহে ডিএসইতে লেনদেন ১৩ শতাংশ কমেছিল। তবে উভয় শেয়ারবাজারেই রোববার মূল্যসূচক ও বাজার মূলধন কিছুটা বেড়েছে। বাজার বিশ্লেষণে দেখা গেছে, ডিএসইতে রোববার ৩১৫টি প্রতিষ্ঠানের ৯ কোটি ৫৯ লাখ শেয়ার লেনদেন হয়েছে। যার মোট মূল্য ৩২৫ কোটি ৭০ লাখ টাকা। যা আগের দিনের চেয়ে ৩০ কোটি ৪৭ লাখ টাকা কম। ডিএসইর ব্রড সূচক আগের দিনের চেয়ে ১ পয়েন্ট বেড়ে ৪ হাজার ৬৪৯ পয়েন্টে উন্নীত হয়েছে। ডিএসই-৩০ মূল্যসূচক দশমিক ৩৪ পয়েন্ট কমে ১ হাজার ৭৬২ পয়েন্টে নেমে এসেছে। ডিএসই শরিয়া সূচক ৩ পয়েন্ট বেড়ে ১ হাজার ১১৬ পয়েন্টে উন্নীত হয়েছে। এর মধ্যে দাম বেড়েছে ১৪০টি প্রতিষ্ঠানের শেয়ারের, কমেছে ১২৬টি এবং অপরিবর্তিত রয়েছে ৪৯টি কোম্পানির শেয়ারের দাম। ডিএসইর বাজার মূলধন আগের দিনের চেয়ে বেড়ে ৩ লাখ ২১ হাজার কোটি টাকায় উন্নীত হয়েছে।
সিএসই : চট্টগ্রাম স্টক এক্সচেঞ্জে রোববার ২৩৩টি প্রতিষ্ঠানের ৮৮ লাখ ৯৬ হাজার শেয়ার লেনদেন হয়েছে। যার মোট মূল্য ২৯ কোটি ২৮ লাখ টাকা। আগের দিনের চেয়ে যা ১ কোটি টাকা কম। এর মধ্যে দাম বেড়েছে ১১৩টি প্রতিষ্ঠানের শেয়ারের দাম, কমেছে ৯২টি এবং অপরিবর্তিত রয়েছে ২৮টি প্রতিষ্ঠানের শেয়ারের দাম। সিএসইর সার্বিক মূল্যসূচক আগের দিনের চেয়ে ১ পয়েন্ট বেড়ে ১৪ হাজার ১৯৮ পয়েন্টে নেমে এসেছে। সিএসই-৩০ মূল্যসূচক ৫১ পয়েন্ট বেড়ে ১২ হাজার ৫৬১ পয়েন্টে উন্নীত হয়েছে। সিএসইর বাজার মূলধন আগের দিনের চেয়ে বেড়ে ২ লাখ ৫৫ হাজার কোটি টাকায় উন্নীত হয়েছে। রোববার ডিএসইতে যেসব প্রতিষ্ঠানের শেয়ার বেশি লেনদেন হয়েছে সেগুলো হল- আমান ফিড, সিভিও পেট্রো কেমিক্যাল, কেডিএস এক্সেসোরিস, বেক্সিমকো ফার্মা, ইউনাইটেড এয়ার, মিরাকল ইন্ডাস্ট্রিজ, সিএনএ টেক্সটাইল, শাহজি বাজার পাওয়ার, ইফাদ অটো এবং বিএসআরএম স্টিল মিল। ডিএসইতে রোববার যেসব প্রতিষ্ঠানের শেয়ারের দাম বেশি বেড়েছে সেগুলো হল- মিরাকল ইন্ডাস্ট্রিজ, স্ট্যান্ডার্ড সিরামিক, দেশ গার্মেন্টস, হাক্কানি পাল্প, দেশবন্ধু পলিমার, আনোয়ার গ্যালভানাইজিং, এক্সিম ব্যাংক প্রথম মিউচুয়াল ফান্ড, ফু-ওয়াং সিরামিক, আনলিমা ইয়ার্ন এবং মুন্নু সিরামিক। অন্যদিকে যেসব প্রতিষ্ঠানের শেয়ারের দাম বেশি কমেছে সেগুলো হল- ইস্টার্ন হাউজিং, গ্রিনডেল্টা মিউচুয়াল ফান্ড, ডেসকো, মোজাফফর হোসেন স্পিনিং মিলস, কেডিএস এক্সেসোরিস, যুমনা ব্যাংক, পঞ্চম আইসিবি মিউচুয়াল ফান্ড, ফারইস্ট ফাইন্যান্স, প্রিমিয়ার সিমেন্ট এবং জাহিন স্পিনিং মিল।

Post a Comment

 
Back To Top