Last Update

Friday, October 30, 2015

মহাকাশে অক্সিজেন ছাড়ছে ধূমকেতু!

মহাকাশে বিশুদ্ধ অক্সিজেন ছাড়ছে ধূমকেতু। ইউরোপিয়ান স্পেস এজেন্সির (ইএসএ) মহাকাশযান ‘রোসেটা’ এই অভূতপূর্ব কার্যক্রম শনাক্ত করেছে। এতে স্তম্ভিত হয়ে পড়েছেন মহাকাশ বিজ্ঞানীরা। ধূমকেতুতে অক্সিজেনের সন্ধান পাওয়ার পর সৌরজগতের গঠন নিয়ে মূলধারার তত্ত্বগুলো এখন চ্যালেঞ্জের মুখে পড়েছে। বুধবার ন্যাচার জার্নালে এ নিয়ে একটি প্রবন্ধ প্রকাশ করেছেন বিজ্ঞানীরা। বৃহস্পতিবার বার্তা সংস্থা এএফপির খবরে বলা হয়, ২৯ জুলাই ও ১৩ আগস্টে ধূমকেতু ‘শ্যুরিমোভ-গেরাশিমেঙ্কো’ থেকে অক্সিজেন উদ্গীরণ শনাক্ত করেন বিজ্ঞানীরা। সৌরমণ্ডলের সূর্যকে ঘিরে চক্কর মারার কক্ষপথে ওই দুটি দিনেই ধূমকেতুটি সবচেয়ে কাছে এসেছিল সূর্যের।
জ্যোতির্বিজ্ঞানের পরিভাষায় যাকে বলে ‘পেরিজে’। দুটি দিনেই সূর্য থেকে ধূমকেতুটি ছিল মাত্র ১৮ কোটি ৬০ লাখ কিলোমিটার দূরে। ওই সময় অ্যামোনিয়া ও হাইড্রোজেন সালফাইডের মতো অত্যন্ত দুর্গন্ধের দুটি গ্যাসও মহাকাশে ছড়িয়েছে ‘শ্যুরিমোভ-গেরাশিমেঙ্কো’। মহাকাশযান ‘রোসেটা’র তোলা সেই ছবি লরেল থেকে ই-মেইলে পাঠিয়ে মেরিল্যান্ড বিশ্ববিদ্যালয়ের সাইবার সিকিওরিটি সেন্টারের কম্পিউটারবিজ্ঞানী হিল্লোলগুপ্ত জানাচ্ছেন, ‘এ ঘটনা রীতিমতো অভূতপূর্ব। এর আগে কখনও কোনো ধূমকেতুকে এভাবে মহাকাশে বিশুদ্ধ অক্সিজেন ছড়িয়ে দিতে দেখা যায়নি।’ এতদিন বিজ্ঞানীরা বলছিলেন, ৪৬০০ কোটি বছর আগে সৌরজগৎ গঠিত হয়েছিল। আর অক্সিজেন যে কোনো উপাদানের সঙ্গে সহজেই মিশে যায়। বার্ন বিশ্ববিদ্যালয়ের অধ্যাপক ক্যাথরিন অলটেগ বলেন, ‘আমরা কখনও ভাবিনি, অক্সিজেন এভাবে বিশুদ্ধ আকারে কোটি কোটি বছর অস্তিত্বশীল থাকতে পারে।’

Post a Comment

 
Back To Top