Last Update

Sunday, November 1, 2015

শান্তি ঐক্য উন্নয়নের প্রথম শর্ত : মোদি

জাতীয় অখণ্ডতার জন্য সরদার বল্লভ ভাই প্যাটেলের কাজ অনস্বীকার্য উল্লেখ করে ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি বলেছেন, ভারতকে সামনের দিকে এগোতে হলে এবং উন্নয়নের নতুন মাত্রা অর্জনের প্রথম শর্ত হল ‘ঐক্য, শান্তি ও সম্প্রীতি’। প্যাটেলের ১৪০তম জন্মবার্ষিকীতে শনিবার তিনি এ কথা বলেন। তিনি বলেন, ‘একতা আমাদের বিরাট শক্তি ... ঐক্য, শান্তি ও সম্প্রীতির মন্ত্রে আমাদের সামনের দিকে এগিয়ে যেতে হবে।’ দাদরিতে পিটিয়ে হত্যা, গরুর মাংস বিতর্ক ও অন্যান্য ঘটনার পর ‘ক্রমবর্ধমান অসহিষ্ণুতার’ অভিযোগে শিল্পী, লেখক ও বিজ্ঞানীদের বিক্ষোভের প্রেক্ষাপটে তিনি এ কথা বলেন। মোদি তার বক্তৃতায় রাজনীতির পরিবারতন্ত্রের বিরুদ্ধেও কথা বলেন। তিনি উল্লেখ করেন, প্যাটেল তার পরিবারের কোনো সদস্যকে রাজনীতিতে আনেননি। ভারতের প্রথম উপপ্রধানমন্ত্রীর জন্মবার্ষিকী উপলক্ষে জাতীয় অখণ্ডতা দিবসের অনুষ্ঠানে বক্তৃতাকালে মোদি ‘রান ফর ইউনিটি’ নামে একটি পতাকা উড়ান।
তিনি প্যাটেলের বার্তা অনুসরণ করতে সবাইকে নির্দেশ দেন যাতে জাতি ঐক্যের জন্য যে কোনো ত্যাগ স্বীকার করতে পারে। তিনি বলেন, ‘ভারতকে সামনের দিকে এগোতে হলে এবং উন্নয়নের নতুন মাত্রা অর্জন করতে প্রথম যে কাজটা করতে হবে তা হল, কাশ্মীর থেকে কন্যাকুমারী পর্যন্ত আমাদের ভাষা ও মতাদর্শের যে ভিন্নতা রয়েছে তা ভুলে যেতে হবে। আমাদের লক্ষ্য যদি হয়, ভারতমাতাকে বিশ্বে নতুন উচ্চতায় নিয়ে যাওয়া তা হলে প্রথম শর্ত হল ঐক্য, শান্তি ও সম্প্রীতি।’ মোদি বলেন, ‘ঐক্য, শান্তি ও সম্প্রীতির মন্ত্রে ১২৫ কোটি ভারতীয় যদি কাঁধে কাঁধ মিলিয়ে একসঙ্গে এগিয়ে যায় তাহলে দেশ ১২৫ কোটি পা এগিয়ে যাবে।’ জাতীয় ঐক্যের প্রতি প্যাটেল তার জীবন নিবেদিত রেখেছিলেন উল্লেখ করে মোদি বলেন, ‘আমাদের শক্তি হল আমাদের দেশ ঐক্যের বন্ধনে আবদ্ধ এবং আমরা ঐক্যের জন্য সবকিছু উৎসর্গ করতে পারি। আর এটাই ছিল সরদার প্যাটেলের বার্তা।’ তিনি ঘোষণা করেন, শিগগিরই ‘এক ভারত শ্রেষ্ঠ ভারত’ স্কিম চালু হবে। ভাষণের শুরুতে মোদি সাবেক প্রধানমন্ত্রী ইন্দিরা গান্ধীর কথা স্মরণ করেন। তিনি বলেন, ‘আজকের এ দিনের জন্য ইন্দিরা গান্ধী তার জীবন উৎসর্গ করেছেন এবং তার অবদানও ভোলার নয়।’

Post a Comment

 
Back To Top