Last Update

Thursday, November 5, 2015

শারজায় কোণঠাসা ইংল্যান্ড

সিরিজ বাঁচাতে শারজা টেস্টে জয়ের কোনো বিকল্প নেই ইংল্যান্ডের সামনে। কিন্তু চতুর্থ ইনিংসে ২৮৪ রান তাড়া করে জেতা সহজ কোনো কাজ নয়। ৪৬ রানে দুই উইকেট হারিয়ে কাজটা আরও কঠিন করে তুলেছেন কুকরা। চতুর্থ দিন শেষে জয়ের পাল্লা কিছুটা হলেও ঝুঁকে পড়েছে পাকিস্তানের দিকে। ২-০তে সিরিজ জিততে আজ শেষদিনে আট উইকেট চাই পাকিস্তানের। আর সিরিজ বাঁচানো জয়ের জন্য ইংল্যান্ডের প্রয়োজন আরও ২৩৮ রান। ক্রিজে থাকা দলের সেরা দুই ব্যাটসম্যান অধিনায়ক অ্যালিস্টার কুক (১৭*) ও জো রুটের (৬*) ওপর নির্ভর করছে ইংল্যান্ডের ভাগ্য। শেষদিনের ভাঙা উইকেটে পাকিস্তানি স্পিনারদের বিপক্ষে আজ তারা কতক্ষণ টিকতে পারেন সেটাই দেখার। দ্বিতীয় ইনিংসে ইংল্যান্ডের দুটি উইকেটই নিয়েছেন শোয়েব মালিক। আগের দিনই যিনি জানিয়ে দিয়েছেন, এটাই তার শেষ টেস্ট। সাদা পোশাকে বিদায়ী ম্যাচটা স্মরণীয় করে রাখতে প্রথম ইনিংসেও চার উইকেট নিয়েছেন এই পাকিস্তানি অলরাউন্ডার। মালিকের পাশাপাশি আজ ইয়াসির শাহ ও জুলফিকার বাবরের স্পিনও সামলাতে হবে ইংল্যান্ডকে।
এশিয়ার মাটিতে ২০৯ রানের বেশি তাড়া করে জেতার রেকর্ড নেই কুকদের। কাল ২৮৪ রানের জয়ের লক্ষ্য তাড়া করতে নেমে বিনা উইকেটে ৩৪ তুলে ফেলেছিল ইংল্যান্ড। কিন্তু নিজের পরপর দুই ওভারে মঈন আলী ও ইয়ান বেলকে ফিরিয়ে ইংলিশদের ব্যাকফুটে ঠেলে দেন মালিক। এর আগে পাকিস্তানের লড়াই করার মঞ্চটা সাজিয়ে দিয়েছেন মেহাম্মদ হাফিজ। তার ১৫১ রানের অনবদ্য ইনিংসে ভর করেই পাকিস্তানের দ্বিতীয় ইনিংস থামে ৩৫৫ রানে। আগের দিন ৯৭ রানে অপরাজিত থাকা হাফিজ কাল শুরুতেই একবার জীবন পেয়ে ক্যারিয়ারের নবম টেস্ট সেঞ্চুরি তুলে নেন। পঞ্চম উইকেটে অধিনায়ক মিসবাহ উল-হকের (৩৮) সঙ্গে তার ৯৩ রানের জুটিই ম্যাচের মোড় ঘুরিয়ে দেয়। পরে সপ্তম উইকেটে আসাদ শফিক (৪৬) ও সরফরাজ আহমেদের (৩৬) আরেকটি কার্যকর জুটিতে পাকিস্তানের লিড আড়াইশ’ ছাড়িয়ে যায়। ৪৪ রানে তিন উইকেট নিয়ে ইংল্যান্ডের সবচেয়ে সফল বোলার স্টুয়ার্ট ব্রড। আরেক পেসার জেমস অ্যান্ডারসনের ঝুলিতে গেছে দুই উইকেট। এএফপি।
স্কোর কার্ড
পাকিস্তান প্রথম ইনিংস ২৩৪ (শোয়েব মালিক ৩৮, মিসবাহ ৭১, সরফরাজ ৩৯। অ্যান্ডারসন ৪/১৭)।
ইংল্যান্ড প্রথম ইনিংস ৩০৬ (কুক ৪৯, বেল ৪০, টেলর ৭৬, বেয়ারস্টো ৪৩, প্যাটেল ৪২। ইয়াসির শাহ ৩/৯৯, শোয়েব মালিক ৪/৩৩)।
পাকিস্তান দ্বিতীয় ইনিংস
রান বল ৪ ৬
হাফিজ ক বেল ব আলী ১৫১ ২৬৬ ১৫ ৩
আজহার রানআউট ৩৪ ১১৫ ০ ০
মালিক এলবিডব্লু ব অ্যান্ডারসন ০ ১ ০ ০
ইউনুস এলবিডব্লু ব ব্রড ১৪ ৩৯ ১ ০
রাহাত ব অ্যান্ডারসন ০ ১২ ০ ০
মিসবাহ এলবিডব্লু ব ব্রড ৩৮ ৮৬ ২ ১
শফিক ব ব্রড ৪৬ ১০৯ ৪ ১
সরফরাজ ব প্যাটেল ৩৬ ৩৬ ৪ ০
ইয়াসির ক ব্রড ব রশীদ ৪ ১৬ ১ ০
ওয়াহাব রানআউট ২১ ২৭ ২ ০
বাবর নটআউট ০ ৪ ০ ০
অতিরিক্ত ১১
মোট (অলআউট, ১১৮.২ ওভারে) ৩৫৫
উইকেট পতন : ১/১০১, ২/১০৫, ৩/১৪৬, ৪/১৫২, ৫/২৪৫, ৬/২৫৭, ৭/৩১২, ৮/৩১৯, ৯/৩৫৪, ১০/৩৫৫।
বোলিং : অ্যান্ডারসন ২৬-৮-৫২-২, ব্রড ২৩-৬-৪৪-৩, প্যাটেল ১৯-১-৭৯-১, মঈন আলী ২১.২-১-৭২-১, আদিল রশীদ ২৯-৩-৯৭-১।
ইংল্যান্ড দ্বিতীয় ইনিংস
রান বল ৪ ৬
মঈন আলী এলবিডব্লু ব মালিক ২২ ৪৩ ২ ০
কুক নটআউট ১৭ ৫৯ ১ ০
বেল ব মালিক ০ ৬ ০ ০
রুট নটআউট ৬ ২৫ ০ ০
অতিরিক্ত ১
মোট (২ উইকেটে, ২২ ওভারে) ৪৬
উইকেট পতন : ১/৩৪, ২/৩৪।
বোলিং : রাহাত আলী ২-০-১৩-০, ওয়াহাব রিয়াজ ২-০-১০-০, জুলফিকার বাবর, ৯-২-১১-০, শোয়েব মালিক ৭-৩-৮-২, ইয়াসির শাহ ২-০-৪-০।

Post a Comment

 
Back To Top