Last Update

Friday, November 6, 2015

মুরসি গণতন্ত্র সিসি ভণ্ড

মিসরের বিরোধী দলগুলো এবং মানবাধিকার সংগঠনগুলো দেশটির স্বৈরশাসক আবদেল ফাত্তাহ আল সিসির বিরুদ্ধে তদন্ত এবং তাকে গ্রেফতারের দাবি জানিয়েছে। মানবাধিকার লংঘন করে নির্মম নির্যাতনের মাধ্যমে বিরোধীদের দমনকারী, বর্তমানে লন্ডন সফররত জেনারেল সিসিকে ‘লাল গালিচা’ সংবর্ধনা দেয়ায় ব্রিটিশ সরকারও সমালোচনার মুখে পড়েছে। হাজার হাজার প্রবাসী মিসরীয় বুধবার সন্ধ্যায় লন্ডনে ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রীর সরকারি বাসভবন ১০নং ডাউনিং স্ট্রিটের বাহিরে জড়ো হয়ে বিক্ষোভ করতে থাকেন। বৃহস্পতিবার স্থানীয় সময় সকালে জেনারেল সিসি ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রী ডেভিড ক্যামেরনের সঙ্গে সাক্ষাতের উদ্দেশ্যে সেখানে যান। সিসির এ সফরের বিরোধিতা করে হাতে ‘কসাই সিসিকে থামাও’ এবং ‘হত্যাকারী সিসি ব্রিটেনে প্রত্যাখ্যাত’ লেখা প্লাকার্ড নিয়ে মানবাধিকারকর্মী ও বিরোধী দলের হাজার হাজার কর্মীরা বিক্ষোভ করেন।
অনেকেই হলুদ টি-শার্ট পরে হাজির হয়েছিলেন। ২০১৩ সালের আগস্টে কায়রোর রাব্বা স্কয়ারে বিরোধী সমাবেশে নিরাপত্তা বাহিনীর হামলায় শত শত লোক নিহত হওয়ার ঘটনা স্মরণে অনেকেই চার আঙুলের ‘আর ফর রাবিয়া’ প্রতীকসংবলিত পতাকা নিয়ে বিক্ষোভে অংশ নেন। মানবাধিকার সংগঠন হিউম্যান রাইটস ওয়াচ এ ঘটনাকে ‘সমাবেশে হামলায় একদিনে নিহত হওয়ার সবচেয়ে বড় ঘটনা’ হিসেবে বর্ণনা করেছে। গণতান্ত্রিকভাবে নির্বাচিত প্রেসিডেন্ট মোহাম্মদ মুরসিকে ২০১৩ সালে কারারুদ্ধ করার প্রতিবাদে তারা ‘মুরসি গণতন্ত্র, সিসি ভণ্ড’ বলে স্লোগান দিতে থাকেন। মিসরীয় বিল্পবী কাউন্সিলের প্রধান মাহা আজম বলেন, “আমরা এখানে একত্রিত হয়েছি ‘তোমার লজ্জা হওয়া উচিত ক্যামেরন’ বলতে। ব্রিটেন বা মিসরের একজন মানুষও রক্তে রঞ্জিত স্বৈরশাসকের হাতকে উষ্ণভাবে গ্রহণ করতে পারেন না। আমরা সিসির মানবাধিকার লংঘনের তদন্ত এবং তাকে গ্রেফতার করার দাবি করছি।’ আল জাজিরা।

Post a Comment

 
Back To Top