Last Update

Monday, October 24, 2016

এবার পর্নো অভিনেত্রীর অভিযোগ

জেসিকা ড্রেক
ডোনাল্ড ট্রাম্পের বিরুদ্ধে এবার যৌন নিগ্রহের অভিযোগ আনলেন পর্নো ছবির এক অভিনেত্রী। জেসিকা ড্রেক নামের ওই নারী গত শনিবার বলেছেন, তাঁকে ট্রাম্প একবার নিজ হোটেলকক্ষে একা ডেকেছিলেন। বিনিময়ে ১০ হাজার মার্কিন ডলার দেওয়ার প্রস্তাব দিয়েছিলেন। এই নিয়ে ট্রাম্পের বিরুদ্ধে যৌন নিগ্রহের অভিযোগ করা নারীর সংখ্যা ১১ জনে দাঁড়াল। তাঁদের অভিযোগ, ট্রাম্প জোর করে জড়িয়ে ধরছেন বা চুমু খেয়েছেন অথবা গোপনাঙ্গে হাত দিয়েছেন...ইত্যাদি। লস অ্যাঞ্জেলেসে এক সংবাদ সম্মেলনে জেসিকা ড্রেক বলেন, ক্যালিফোর্নিয়ার লেক টাহয়ে ২০০৬ সালে একটি গলফ টুর্নামেন্টে তাঁর ট্রাম্পের সঙ্গে দেখা হয়। সেখানেই আলাপ এবং ট্রাম্পের ওই প্রস্তাব। তবে ট্রাম্পের হোটেলে যাওয়ার সময় জেসিকা আরও দুই নারীকে সঙ্গে নিয়েছিলেন। সেখানে প্রবেশের পর ট্রাম্প প্রত্যেককেই জোর করে আলিঙ্গন করেন এবং অনুমতি ছাড়াই একজনকে চুমু খান। পর্নোগ্রাফি করতে কেমন লাগে, সেই প্রশ্নও করেন। জেসিকার ভাষ্য,
তিনি হোটেল থেকে চলে আসার পর ট্রাম্প তাঁকে ফোন করে নিজের কক্ষে একা যেতে বলেন। জানতে চান, ‘কত চাও?’ প্রত্যাখ্যান করার পর আরেকটি ফোন এসেছিল। ট্রাম্প বা অন্য কেউ ১০ হাজার ডলারের প্রস্তাব দেন। বিনিময়ে জেসিকাকে ট্রাম্পের ব্যক্তিগত বিমানে চড়ে লস অ্যাঞ্জেলেস পর্যন্ত যেতে হবে। সংবাদ সম্মেলনে জেসিকার সঙ্গে উপস্থিত ছিলেন বৈষম্যবিরোধী আইনজীবী গ্লোরিয়া অলরেড। তিনি আরও দুই নারীকে উপস্থাপন করেন, যাঁরা নাকি ট্রাম্পের মাধ্যমে হয়রানির শিকার হয়েছিলেন। অলরেড শনিবার একটি আলোকচিত্র দেখিয়েছেন, যাতে ওই গলফ টুর্নামেন্টে ট্রাম্প ও জেসিকা ড্রেককে একসঙ্গে দেখা যায়। ট্রাম্পের নির্বাচনী প্রচার দপ্তর এক বিবৃতিতে জেসিকার ওই অভিযোগ অস্বীকার করে বলেছে, ‘এই গল্প ডাহা মিথ্যা ও হাস্যকর। ট্রাম্প এই নারীকে চেনেন না, তাঁকে স্মরণ করতে পারেন না এবং এ বিষয়ে কোনো আগ্রহও রাখেন না।’

Post a Comment

 
Back To Top