Last Update

Saturday, November 5, 2016

ফারুকী-তিশা বললেন ‘না’

ডুব ছবির শুটিংয়ের ফাঁকে
তিশা ও ইরফান খান
শুরু থেকেই গোপনীয়তার মধ্য দিয়ে ডুব ছবির কাজ করা হয়। মাস সাতেক আগে শেষ হয়েছে এই ছবির কাজ। হঠাৎ করেই ভারতের পশ্চিমবঙ্গের একটি শীর্ষ দৈনিকে খবর প্রকাশিত হয়েছে, ডুব ছবিটি বাংলাদেশের জনপ্রিয় কথাসাহিত্যিক হুমায়ূন আহমেদের জীবনী অবলম্বনে নির্মিত। আর এতে নাকি হুমায়ূন আহমেদের চরিত্রে অভিনয় করেছেন ইরফান খান। এ ঘটনার সত্যতা জানতে গতকাল শুক্রবার কথা হয় ছবিটির নির্মাতা মোস্তফা সরয়ার ফারুকীর সঙ্গে। সাফ জানিয়ে দিলেন তিনি, ‘আমি কোনো বায়োপিক বানাচ্ছি না। আমরা কোথাও ঘোষণা দিইনি যে হুমায়ূন আহমেদের জীবনী নিয়ে কিছু করছি। ভবিষ্যতেও কোনো দিন বলার সম্ভাবনা নাই যে এটা হুমায়ূন আহমেদের জীবনী অবলম্বনে তৈরি সিনেমা।’ ভারতীয় পত্রিকাটি এও জানিয়েছে, হুমায়ূন আহমেদের মেয়ে শীলা আহমেদের চরিত্রে অভিনয় করছেন তিশা, প্রথম স্ত্রী গুলতেকিনের ভূমিকায় রয়েছেন রোকেয়া প্রাচী ও দ্বিতীয় স্ত্রী শাওনের চরিত্রে অভিনয় করছেন পর্নো মিত্র। এসব প্রসঙ্গে জানতে চাইলে ফারুকী বললেন, ‘আমার সব গল্পই আশপাশের জীবন ও দূরের জীবনের বিভিন্ন দিক থেকে অনুপ্রাণিত।
পৃথিবীর সেরা গল্পগুলোর ক্ষেত্রেও একই জিনিস কাজ করে। এরপর আমি আমার মতো করে একটা গল্প বানিয়েছি। বায়োপিক বানালে তো আমি ঘোষণা করতাম। আমি এই ছবিতে আশপাশের কিছু জিনিস থেকে অনুপ্রাণিত হয়ে একটা পরিবারের গল্প বলার চেষ্টা করেছি। আর জীবনের গেল্প কে কোথা থেকে অনুপ্রেরণা নিচ্ছে, এটা কেউ নিয়ন্ত্রণ করতে পারবে না।’ তিশা বলেন, ‘আমি কোন চরিত্রে আর অন্যরা কোন চরিত্রে অভিনয় করেছেন—সবকিছু জানতে হলে সিনেমাটা প্রেক্ষাগৃহে গিয়ে দেখতে হবে। কিন্তু এর মাঝে হুমায়ূন আহমেদ প্রসঙ্গ কেন এল, তা আমি বুঝতে পারছি না!’ আপনি কি শীলা আহমেদের চরিত্রে অভিনয় করেছেন? এমন প্রশ্নের জবাবে তিনি বললেন, ‘আমি সুন্দর একটা গল্পের সিনেমায় অভিনয় করেছি। ভালো একটা চরিত্র পেয়েছি। ইরফান খানের সঙ্গে অভিনয় করাটা দারুণ একটা অভিজ্ঞতা।’ ইরফান খান যে হুমায়ূন আহমেদের চরিত্রে অভিনয় করেননি, এর প্রমাণ হিসেবে ফারুকী বলেন, ‘আমার এই ছবির প্রধান চরিত্রের নাম জাবেদ হাসান, যাতে অভিনয় করেছেন ইরফান খান। যাঁর বাড়ি সৈয়দপুরে। হুমায়ূন আহমেদ কোথা থেকে এল?’

Post a Comment

 
Back To Top