Last Update

Tuesday, April 18, 2017

সাংসদ আমানুরের জামিন স্থগিতের সময় বাড়ল

আওয়ামী লীগ নেতা মুক্তিযোদ্ধা ফারুক আহমেদ হত্যা মামলায় টাঙ্গাইল-৩ আসনের সাংসদ আমানুর রহমান খানের জামিন স্থগিতের মেয়াদ বাড়িয়েছেন চেম্বার বিচারপতি। হাইকোর্টের দেওয়া জামিন আগামী আট মে পর্যন্ত স্থগিত করা হয়েছে। পাশাপাশি ওই দিন আপিল বিভাগের নিয়মিত বেঞ্চে বিষয়টি শুনানির জন্য পাঠিয়ে দেওয়া হয়েছে। আজ মঙ্গলবার অবকাশকালীন চেম্বার বিচারপতি হাসান ফয়েজ সিদ্দিকী এ আদেশ দেন। এর আগে গত রোববার (১৬ এপ্রিল) চেম্বার বিচারপতি ১৮ এপ্রিল পর্যন্ত হাইকোর্টের দেওয়া জামিন স্থগিত করে আজ শুনানির দিন ধার্য করেছিলেন। এর ধারাবাহিকতায় আজ বিষয়টি শুনানির জন্য ওঠে। রাষ্ট্রপক্ষে শুনানিতে ছিলেন অ্যাটর্নি জেনারেল মাহবুবে আলম। আমানুর রহমান খানের পক্ষে শুনানি করেন আইনজীবী আবদুল বাসেত মজুমদার ও আইনজীবী রুশো মোস্তফা। পরে রুশো মোস্তফা প্রথম আলোকে বলেন, আমানুর রহমান খান ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের প্রিজন সেলে চিকিৎসাধীন।
জামিন স্থগিত হওয়ায় আপাতত তিনি মুক্তি পাচ্ছেন না। এর আগে ৩০ মার্চ হাইকোর্টের অপর একটি দ্বৈত বেঞ্চ তার জামিন প্রশ্নে দেওয়া রুল উত্থাপিত হয়নি মর্মে খারিজ করে দেন। এরপর ২ এপ্রিল বিচারিক আদালতে আমানুর করলে তা নামঞ্জুর হয়। এর বিরুদ্ধে জামিন চেয়ে ৪ এপ্রিল হাইকোর্টে আবেদন করেন আমানুর, যার ওপর শুনানি নিয়ে ১৩ এপ্রিল হাইকোর্ট অন্তর্বর্তীকালীন জামিন দেন। আওয়ামী লীগের টাঙ্গাইল জেলা কমিটির সদস্য ফারুক আহমেদকে ২০১৩ সালের ১৮ জানুয়ারি গুলি করে হত্যা করা হয়। তিন দিন পর তাঁর স্ত্রী টাঙ্গাইল মডেল থানায় অজ্ঞাতপরিচয় কয়েকজনকে আসামি করে মামলা করেন। এ মামলায় গত বছরের ৩ ফেব্রুয়ারি আমানুর, তাঁর তিন ভাইসহ ১৪ জনের বিরুদ্ধে আদালতে অভিযোগপত্র দেয় পুলিশ। দীর্ঘদিন পলাতক থাকার পর ১৮ সেপ্টেম্বর টাঙ্গাইলের আদালতে আত্মসমর্পণ করেন আমানুর। পরে আদালত তাঁকে কারাগারে পাঠানোর নির্দেশ দেন।

Post a Comment

 
Back To Top