Last Update

Sunday, June 4, 2017

ইভটিজিংয়ে বাধা দেয়ায় সাংবাদিকসহ আহত ২

গোয়ালন্দে স্কুল ছাত্রীদের উৎত্যক্ত করার অনৈতিক কাজে বাধা দেয়ায় ক্ষিপ্ত হয়ে বখাটেরা সাংবাদিক আরিফুর রহমান মিশুক ও জুয়েল রানা নামে দুই ব্যক্তিকে শুক্রবার রাত ৮টার দিকে মারপিট করে গুরুতর আহত করেছে। মিশুক পৌর ২নং ওয়ার্ড দেওয়ান পাড়ার আঃ রহমান মোল্লার ছেলে এবং জুয়েল রানা একই এলাকার ইছাক শেখের ছেলে। জানা গেছে,গোয়ালন্দ প্রপার হাইস্কুলের ছাত্রীরা স্কুলে আসা-যাওযার পথে পৌরসভা ৮নং ওয়ার্ড বালিয়া ডাঙ্গার গোলাপ সরদারের বখাটে ছেলে মোঃ রানা সরদার কয়েক বন্ধুকে নিয়ে দীর্ঘদিন ধরে ছাত্রীদের উত্যক্ত করে আসছিলো। সাংবাদিক মিশুক ও জুয়েল কয়েকদিন আগে তাদের এ কাজে বাধা দেয় এবং এক পর্যায় তাদের সেখান থেকে তাড়িয়ে দেয়। এর জের হিসেবে রানা ক্ষিপ্ত হয়ে সাংবাদিক মিশুক ও জুয়েলকে মারপিট করে। আহত অবস্থায় মিশুক ও জুয়েলকে প্রথমে গোয়ালন্দ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়। পরে জুয়েলের অবস্থা আরো খারাপ হওয়ায় ফরিদপুর মেডিকেলে রেফার করা হয়। এ ব্যাপারে গোয়ালন্দ স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স থেকে সাংবাদিক মিশুক জানান, রানা দির্ঘদিন স্কুলের মেয়েদের উৎত্যক্ত করে আসছিলো। আমি তাকে এ কাজে বাধাদিয়ে সরে যেতে বাধ্য করেছিলাম। যার ফলে সে ক্ষিপ্ত হয়ে আমাদের মারপিট করেছে। তিনি আরো বলেন, ঘটনার দিন তিনি তার আরেক সাথী জুয়েল খানখানাপুর থেকে ইফতারী করে একই হোন্ডায় বাড়ী ফিরছিলেন। এমন সময় রানা, শাহীন ও ৭/৮জন অজ্ঞাত যুবক সহ অস্ত্র-সস্ত্র নিয়ে পথে ওঁৎ পেতে বসে থেকে আমাদের মারপিট করে। মিশুকের চাচা পৌর কান্সিলর কুদ্দস আলম বলেন, ইভটিজিং এ বাধা দেয়ায় আমার ভাতিজাকে মারপিট করা হয়েছে। আমি এর সঠিক বিচার চাই। এ ব্যাপারে সাংবাদিক মিশুকের বড় ভাই রফিকুল ইসলাম বাদী হয়ে গোয়ালন্দ ঘাট থানায় রানা,শাহিন সহ অজ্ঞাত ৮/১০ জনের নামে মামলা করেছেন।

Post a Comment

 
Back To Top